Sangeet shastra/Byakaran

ঘরানা-বিভিন্ন শিল্পীদের নিজ স্বভাব,শিক্ষা,পরিস্থিতি অনুযায়ী সঙ্গীত পরিবেশিত হয়।ব্যক্তিত্বেরও প্রভাব পড়ে গান ও বাজনায়।শিল্পীদের বয়স ও অভিজ্ঞতার বাড়ার সঙ্গে পরিবেশনের রীতি ও পরিবর্তিত হয় ও আরও উন্নত হয়।গুরু-শিষ্য পরম্পরায় রীতি এক হয়।শিষ্য গুরুর শিক্ষার দ্বারা প্রভাবিত হয় ও বিশেষ একটি রীতির প্রচলন হয়,তাকেই ঘরানা বলে।বাদ্যের ক্ষেত্রে বাজ বলে।ভারতে সাতটি ঘরানাকে প্রধান মনে করা হয়  :

গোয়ালিয়র ঘরানা-নত্থন পীর বখ্স খাঁ এই ঘরানার প্রবর্তক।তাঁর দুই পুত্র কদর বখ্স ও পীর বখ্স।প্রথম জনের তিন পুত্র হস্সু,হদ্দু,নত্থু খেয়াল গায়নে পারদর্শী ছিলেন।হস্সু খাঁর শিষ্যগণ পরম্পরায় হলেন গুলে ইমাম,মেহদী হুসেন,বালকৃষ্ণ বুয়া,বাবা দীক্ষিত,বাসুদেব যোশী।বালকৃৃষ্ণ বুয়ার শিষ্য পন্ডিত বিষ্ণুদিগম্বর পালুস্কর।পন্ডিতজির শিষ্যরা হলেন বি.এ.কুশলকর,ওঁঙ্কারনাথ ঠাকুর,বিনায়ক রাও পট্টবর্ধন।

হদদু খাঁর গায়ক পুত্ররা হলেন রহমত খাঁ ও মহম্মদ খাঁ।এবং জামাতা ইনায়েৎ খাঁ,তাঁর জামাতা ও শিষ্য রামপুুরের মুস্তাক হুুুসেন।ইনি কলাবন্ত হিসাবে প্রসিদ্ধ হন।হদদু খাঁর শিষ্য ইমদাদ হুসেন,তাঁর পুত্র-শিষ্য ওয়াজিদ হুসেন এলাহাবাদ নিবাসী হন।নত্থু খাঁর শিষ্য ছিলেন তাঁর দত্তক পুত্র  নিসার হুসেন খাঁ।এঁর শিষ্য শঙ্কর পন্ডিত।তাঁর শিষ্য কৃষ্ণরাও পন্ডিত।

এই ঘরানার বৈশিষ্ট্য হল ধ্রুপদ অঙ্গের খেয়াল,সপাট তান,লয়কারি,খোলা আওয়াজের প্রয়োগ,আকার প্রধান আলাপ,বিস্তারের প্রতি বেশি গুরুত্ব।  

মন্তব্য

এই ব্লগটি থেকে জনপ্রিয় পোস্টগুলি

Sangeet Byakaran

Sangeet Byakaran

Sangeet shastra/Byakaran