পোস্ট

ডিসেম্বর ২২, ২০২০ থেকে পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে

Sangeet shastra/Byakaran

ছবি
তানপুরা:- তানপুরা শাস্ত্রীয় সঙ্গীত শেখার অপরিহার্য অঙ্গ।কথিত আছে যে তম্বরু মুনি এই যন্ত্র আবিষ্কার করেন,তাই এর নাম তম্বুরা বা তানপুরা। এর লম্বা দন্ডটি তুঁত,কাঁঠাল বা সেগুন কাঠ দিয়ে তৈরি হয়।নীচের গোলাকৃতি,ফাঁপা অংশটি,যাকে তুম্বা বলা হয়,তৈরি লাউ দিয়ে। তুম্বার উপরে পাতলা কাঠের ঢাকা থাকে,যাকে তবলী  বলে।দন্ড ও তুম্বার সংযোগস্থলকে গুলু বা কমর বলে।তুুম্বার নীচে,একেবারে শেষে চারটি ছিদ্রযুক্ত কাঠের খন্ড লাগানো থাকে,যাকে মোগরা বলে।তবলীর মাঝখানে হাড়ের তৈরি একটি ব্রীজ থাকে।জোয়ারী বলেএর উপরের সমতল অংশকে।এটি ঠিক রাখা হয় ব্রীজের উপরে সুতো লাগিয়ে তারের সঙ্গে। খুঁটির মাথায় চারটি কাঠের গোল টুকরো থাকে,একে খুঁটি বা কান বলে।এর সঙ্গে বাঁধা হয় তানপুরার চারটি তারের একপ্রান্ত। মোগরার সঙ্গে বাঁধা হয় আর এক প্রান্ত। খুঁটির নীচে দুটি হাড়ের অংশ থাকে,তাদের অটী ও তারগহন।চারটি তারের প্রথমটি পিতল বা স্টীলের তৈরি হয়। দ্বিতীয়, তৃতীয় টি স্টীলের ও চতুর্থটি পিতলের তৈরি।তারগুলি  তারগহনের ছিদ্রের মধ্য দিয়ে খুঁটিতে লাগানো হয়। এই চারটি তারের মধ্য দিয়ে চারটি মোতি লাগানো থাকে ব্রীজের নীচে,একে মনকা বলে।এগুুুলিকে সরিয়ে তানপুরার সুর